পৃথিবীতে কয়টি দেশ আছে ? ১৯৩ নাকি ২৪৯?

পৃথিবীতে কয়টি দেশ আছে? প্লে-নার্সারির সাধারণ জ্ঞান বই থেকে শুরু করে চাকরির পরীক্ষা সবজায়গাতেই প্রশ্নটির মুখোমুখি হতে হয় আমাদের দেশে। দেশের সংখ্যা নিয়ে বিভিন্নরূপ বিতর্ক আছে। জাতিসংঘের সদস্য ও পর্যবেক্ষক রাষ্ট্র ১৯৫টি দেশকে বেশিরভাগ স্থানে পরিচিত করানো হলেও অনেকেই মানতে নারাজ।

দেশ কি?

পৃথিবীতে কয়টি দেশ আছে এই বিতর্কের সুরহা করতে হলে আমাদের সবার আগে জানতে হবে দেশ কি? জিওগ্রাফিরিয়েলম মতে, দেশ কি এর কোন মানক সংজ্ঞা নেই। একটি দেশকে এমন স্থান হিসাবে সংজ্ঞায়িত করা যেতে পারে যার স্থায়ী জনসংখ্যা রয়েছে, একটি নির্দিষ্ট ভৌগলিক অঞ্চলে রয়েছে এবং কার্যকরী রাজনৈতিক কাঠামো দিয়ে নিজেকে পরিচালিত করতে সক্ষম। একটি দেশ একটি সাধারণ সাংস্কৃতিক পটভূমি, পরিচয় এবং ঐতিহ্যসহ একাধিক ব্যক্তির দলও হতে পারে। একটি সার্বভৌম দেশ বা রাষ্ট্রের অন্যান্য দেশের সাথে চুক্তি সম্পাদন, বাণিজ্য পরিচালনা এবং কূটনৈতিকভাবে পরিচালনার দক্ষতা থাকা দরকার; মূলত, এটির একটি কার্যকর সরকার প্রয়োজন।

সুতরাং, যদিও একদল লোক নিজেকে কোনও নির্দিষ্ট জায়গার সাথে সম্পর্কিত বলে চিহ্নিত করতে পারে তবে তারা কোনও দেশ বা জমি দখল না করলে তারা দেশ হিসাবে বিবেচিত হবে না। অধিকন্তু, একটি দেশে জমি থাকতে পারে তবে কার্যকর সরকার না থাকলে, অন্যান্য দেশগুলোর সাথে বৈদেশিক সম্পর্ক রাখতে পারে না।

পৃথিবীতে কয়টি দেশ আছে?

পৃথিবীতে কয়টি দেশ আছে এটার উত্তর ভিন্ন ভিন্ন হিসেবে ভিন্ন ভিন্ন । যেমন, জাতিসংঘ, ফিফা, অলেম্পিক, আইএসও স্ট্যান্ডার্ড ইত্যাদি হিসেবে দেশসংখ্যা ভিন্ন।

[ আরও পড়ুন,

জাতিসংঘ সদস্য হিসেবে পৃথিবীতে কয়টি দেশ আছে

জাতিসংঘ (United Nation) সদস্যপদ অনুসারে বর্তমান বিশ্বের দেশ সংখ্যা ১৯৩ টি। এছাড়াও পর্যবেক্ষণ রাষ্ট্র দুইটি। পর্যবেক্ষণ রাষ্ট্রগুলো হলো ফিলিস্তিন ও ভ্যাটিকান সিটি। মোট ১৯৫ টি রাষ্ট্র। জাতিসংঘের সদস্য এই দেশগুলোর বেশিরভাগই একে অপরকে সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসাবে গ্রহণ করে। বিশ্বের মানচিত্রে এই দেশগুলোকে দেখা যায়।

পৃথিবীতে কয়টি দেশ আছে obboymedia

জাতিসংঘ সদস্য তালিকায় সর্বশেষ সংযোজনটি ছিল ২০১২ সালে, প্যালেস্টাইন বা ফিলিস্তিনকে জাতিসংঘের পর্যবেক্ষক সদস্য হিসেবে গ্রহণ করে। এছাড়া সর্বশেষ পূর্ণ সদস্য হিসেবে দক্ষিণ সুদান ২০১১ সালে যোগদান করেছিল।

২০১ আংশিক স্বীকৃত সার্বভৌম রাষ্ট্র।

জাতিসংঘ সদস্য ১৯৫ দেশ ছাড়াও আংশিক স্বীকৃতিসহ আরও ৬টি রাষ্ট্র আছে যাদের নন-ইউএন বলা হয়। রাষ্ট্রগুলো হল তাইওয়ান, পশ্চিম সাহারা, কসোভো, দক্ষিণ ওসেটিয়া, আবখাজিয়া এবং উত্তর সাইপ্রাস। এদেশগুলোকে অন্য দেশ নিজেদের অংশ বলে দাবি করে, তবে দেশগুলো নিজেদের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত।

কিছু তালিকার কুক দ্বীপপুঞ্জ এবং নিউওগিনিকে আংশিক-স্বীকৃত দেশ হিসাবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। এই দুটি দেশ স্বাধীন দেশের মতো কাজ করে তবে তারা কখনও স্বাধীনতা ঘোষণা করে না বা জাতিসংঘে যোগদানের চেষ্টা করেনি৷ দেশ দুইটি সাধারণত নিউজিল্যান্ডের স্ব-শাসিত বিদেশের অঞ্চল হিসাবে বিবেচিত হয়।

Photo by slon_dot_pics from Pexels

২০৪-২০৭ ডি ফ্যাক্টো সার্বভৌম রাজ্য

২০১ আংশিক স্বীকৃত সার্বভৌম রাষ্ট্র ছাড়াও আরও ৩-৬ টি রাষ্ট্র রয়েছে। ৩-৬ একারণেই বলা হচ্ছে কেননা কাউকে কাউকে রাষ্ট্র বলা যায় আবার যায়ও না! ছয়টি আংশিক স্বীকৃত দেশগুলো কেবলমাত্র স্ব-শাসন ব্যবস্থার পৃথক রাষ্ট্র নয়। কমপক্ষে আরও তিনটি স্ব-ঘোষিত দেশ রয়েছে যে দেশগুলোকে কোন জাতিসংঘের সদস্য কোন দেশ দ্বারা স্বীকৃত নয়। তবে দেশগুলো স্বাধীনভাবে কাজ করে। দেশগুলোকে “ডি ফ্যাক্টো” সার্বভৌম রাষ্ট্র বলা হয়। তারা কাগজে-কলমে না থাকলেও স্বাধীন দেশ বলে অভিহিত হয়।

দেশ তিনটি হলো আর্টসখ (নাগরোণো-কারাবাখ), ট্রান্সনিস্ট্রিয়া এবং সোমালিল্যান্ড। এর বাইরে আরও তিনটি দেশ ২০১৪ সাল থেকে এই তালিকার আছে। দেশগুলোর একটি তথাকথিত “ইসলামিক স্টেট”। ইসলামিক স্টেট সক্রিয় যুদ্ধ অঞ্চলে অবস্থিত এবং কেবলমাত্র সরকারী কাঠামোই সীমিত এবং এখন প্রায় বেশিরভাগ জায়গা তারা হারিয়েছে ও শেষের দিকে চলে এসেছে। বাকি দুটি হলো ইউক্রেন থেকে স্বাধীনতার দাবিদার ডোনেটস্ক এবং লুগানস্ক।

এছাড়াও অনেকগুলি বিদ্রোহী-অধিষ্ঠিত অঞ্চল (সোমালিয়ায় পেন্টল্যান্ড রাজ্যের মতো সম্পূর্ণ স্ব-শাসিত অঞ্চল) রয়েছে যেগুলি কোনও দেশ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত নয়, তবে তারা তালিকা থেকে বাদ পড়েছে কারণ তারা স্বাধীন বলে দাবি করে না। তারা নীতিগতভাবে সম্মত হন যে তারা অন্য দেশের অংশ, যদিও দেশ চালানোর বিষয়ে অন্যদের হস্তক্ষেপ তারা গ্রহণ করে না

অলিম্পিক নেশন ২০৬

জাতিসংঘ সদস্য দেশ ১৯৫ কিন্তু অলেম্পিকে অংশ নেওয়া দেশ ২০৬! অবাক হচ্ছেন? এখানে বিভ্রান্ত হওয়ার কিছু নেই। কারণ অলিম্পিকের ক্ষেত্রে সর্বদা আবেদনকারীদের স্বাধীন দেশ হওয়ার প্রয়োজন নেই। আংশিক স্ব-সরকারসহ নির্ভরশীল অঞ্চলগুলোও আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি (আইওসি) দ্বারা অনুমোদিত হয় এবং উপরে বর্ণিত আংশিক-স্বীকৃত কয়েকটি দেশ এর অন্তর্ভুক্ত।

ফিফা নেশন এর তালিকায় পৃথিবীতে দেশ কয়টি

বিশ্বের সর্বাাধিক জনপ্রিয় খেলা ফুটবল বা সকারের নিয়ন্ত্রণ সংস্থা ইন্টারনেশনাল ফেডারেশন অফ অ্যাসোসিয়েশন ফুটবল বা ফিফা তালিকাভুক্ত দেশ ২১১ টি। অলিম্পিকের মতো ফিফার সদস্যদের জন্য সর্বদা স্বাধীনতা বা আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি প্রয়োজন হয় না।

ইউরোপীয় ঐতিহ্যের ভিত্তিতে, ফিফা ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড, ওয়েলস এবং উত্তর আয়ারল্যান্ডকে আলাদা দল হিসাবে প্রতিযোগিতা করার অনুমতি দেয়, যদিও তারা সবাই ২০০ বছরেরও বেশি সময় ধরে যুক্তরাজ্যের অংশ।

২৪৯ আইএসও স্ট্যান্ডার্ড দেশ

ইন্টারন্যাশনাল অরগানাইজেশান ফর স্ট্যান্ডার্ডইজেশন বা আইএসও স্ট্যান্ডার্ড তালিকায় কান্ট্রি কোড রয়েছে ২৪৯ টি। জাতিসংঘ সদস্য দেশগুলো ছাড়াও প্রায়-স্বতন্ত্র, বিদেশের উপনিবেশ, জনহীন দ্বীপপুঞ্জ এমনকি অ্যান্টার্কটিকার জন্যও কান্ট্রি কোড রয়েছে। বাংলাদেশের কান্ট্রি কোড আইএসও ৩১৬৬-২।

কেউ যদি আপনাকে প্রশ্ন করে, পৃথিবীতে কয়টি দেশ আছে বা পৃথিবীতে দেশ কয়টি? তাহলে কিন্তু ফট করে ১৯৩ বললে হবে না, ভেবে নিতে হবে!

[ ছোটবেলায় পড়েছি বাংলাদেশের আয়তন ১,৪৭,৫৭০ বর্গকিঃমিঃ। কিন্তু এখন পাঠ্যবইয়ের আয়তন নেই, বাংলাদেশের আয়তন বেড়েছে প্রায় দুই তৃতীয়াংশ। বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন নিচের লিংকে,

বাংলাদেশের আয়তন কত? যেভাবে হলো ২,৪৭,৬৭৭ বর্গ কিঃমিঃ ]